প্রযুক্তিগত দিক থেকে জাপানকে কেন প্রযুক্তির রাজা বলা হয়, না জানা থাকলে জেনে নিন এখনই।।।।

আসসালামুআলাইকুম, আমি সম্রাট । আশা করি সবাই ভালোই আছেন আমি ও ভাল আছি।


আজকে আমি আপনাদেরকে যে দেশটির কথা বলব এক কথায় সেই দেশটিকে প্রযুক্তির রাজা বলা যায়। আর সে দেশটি হচ্ছে জাপান। জাপান কে কেন প্রযুক্তির রাজা বলা হয়, সেই সম্পর্কেই বিস্তারিত আলোচনা আমি আজকে করব। বর্তমান যুগ বিজ্ঞানের যুগ, আর যেখানেই বিজ্ঞান সেখানেই প্রযক্তি। আর প্রযুক্তিগত দিক থেকে সব থেকে এগিয়ে আছে জাপান। অবশ্য আমরা অনেকে মনে করি বিশ্বের সব চেয়ে উন্নত দেশ হলো আমেরিকা, অবশ্য এ বিষয়ে কোন সন্দেহ নেই আর্থিক থেকে তারা অবশ্যই উন্নত। এজন্যে টাকা দিয়ে তারা হয়ত তারা উন্নত প্রযুক্তির জিনিস কিনতে সক্ষম হয়েছে। কিন্তু প্রযুক্তির নৈপূণ্যতার দিক থেকে জাপান অনেক এগিয়ে। জাপানের মানুষেরা নিজেরাই অনেক উন্নত প্রযুক্তির জিনিস তৈরি করতে সক্ষম। তাই প্রযুক্তির দিক থেকে জাপানই সবার সেরা।


প্রথমেই বলব রোবটের কথা। যদিও রোবটের ব্যাবহার কতটা প্রাসঙ্গিক তা নিয়ে রয়েছে মানুষের মধ্যে রয়েছে ভিন্ন মত। তবুও মানুষ নিজের প্রয়োজনে নিয়মত রোবোট বানিয়েই চলেছে। কারন বর্তমান আধুনিক যোগে সবাই চায় আরামে থাকতে। তাই তো এখন রেস্টুরেন্ট,মার্কেট সহ প্রায় সব যায়গায়ই রোবোটের ব্যাবহার বেড়েই চলেছে। তাই সব দেশ পাল্লা দিয়ে রোবটের উৎপাদন বাড়িয়েই চলেছে।


বুলেট ট্রেন, যে ট্রেনটির কথা আপনারা হয়তো সবাই জানেন, আর এই ট্রেন টি ও তৈরি করেছে জাপান। যার গতিবেগ ঘন্টায় প্রায় ৬১২ কিলোমিটার। আর এই ট্রেনটিই হচ্ছে পৃথিবীর সব থেকে গতিবেগ সম্পর্ন্ন ট্রেন। তাহলেই ভাবেন জাপানের প্রযুক্তি কতটা উন্নত।


car parking এর ক্ষেত্রেউ জাপান অনান্য দেশের থেকে অনেকটাই এগিয়ে। জাপানে রয়েছে অত্যাধুনিক car parking ব্যাবস্থা। যেখানে শুধু আপনার গাড়িটা যেখানে car park করা হয় সেখানে নিয়ে রাখবেন। তার পর আপনাকে আর কিছুই করতে হবেনা, আপনার গাড়িটি তখন অটোমেটিক ভাবে parking হবে। আবার আপনার যখন কাজ শেষ হবে তখন আপনি শুধু parking এর জায়গায় গিয়ে দাড়াবেন অটোমেটিকভাবে আপনার গাড়িটি এসে যাবে। তার গাড়ি নিয়ে এসে পড়বেন। সত্যি অনেক মজার ব্যাপারটা।।


Texi তে আমরা সবাই কমবেশি উঠে থাকি, cap বা সাধারন Texi সব ক্ষেত্রেই Texi ইর দরজা আমাদের নিজের ই খুলতে হয়, জাপান এ ক্ষেত্রেউ বাকি সব দেশের চেয়ে একধাপ এগিয়ে রয়েছে। জাপানে আপনি Texi বুক করলে আপনার জন্য যে Texi আসবে তার দরজা আপনার খুলার প্রয়োজন নেই, সেটি আপনাআপনি খুলে যাবে, আবার আপনি যখন গাড়ি থেকে নেমে যাবেন তখন দরজা আটোমেটিকভাবে বন্ধ হয়ে যাবে। আরর্শ্চ হওয়ার কিছুই নেই এটাই হলো জাপান।

.
আরো মজার বিষয় হলো আপনারা যারা নামি দামী brand এর ইলেকট্রনিক্স পন্য ব্যাবহার করে থাকেন তার বেশিরভাগই জাপানের। যেমনঃ Nintendo, Toyota, Sony, Honda, Toshiba, Suzuki, Canon, Panasonic, Nikon, Nissan, Hitachi, এই সব নামি দামী কোম্পানি সব কয়টি জাপানে। এক কথায় বলতে গেলে প্রযুক্তিগত দিক থেকে জাপানই সবার সেরা।।

সবাই ভালো থাকবেন, এবং প্রযুক্তির সব নতুন খবর পেতে tipsbd এর সাথেই থাকবেন।♥ধন্যবাদ♥

Leave a Reply